📔HS2019 - + 8 বহুদিন জঙ্গলে যেতে না পারার জন্য , সেখানে দিন কাটাতে না পারার জন্য । নাগরিক জীবনে আটকে থাকা মানুষের তীব্র হৃদয়যন্ত্রপাই যেন প্রকাশিত তটি প্রশ্নের পূর্ণমান হয়েছে কবির এই আক্ষেপে | আর এই আক্ষেপ থেকে মুক্তিলাভের জন্যই কবি তার বাগানে গাছ এনে বসানাের কথা বলেছেন । নাও ” এই মন্তব্যের এর মনােভাব “ আমি “ আরােগ্যের জন্যে ঐ সবুজের ভীষণ দরকার ” - কে করাে । কোথায় এ কথা বলেছেন ? এই মন্তব্যের মধ্য দিয়ে বক্তার । নে বসাও ” — উক্তিটি কীরূপ মনােভাব প্রকাশ পেয়েছে ? বটিএ ইনটার স্কুল টেস্ট ] ১ ১ / - xহাৈওড়া যােগেশচন্দ্র গার্লস স্কুল ] ক উত্তর । ণ ও ভালােবাসা — তারই । শক্তি চট্টোপাধ্যায় তার ‘ আমি দেখি ’ কবিতায় প্রশ্নোপ্ত মন্তব্যটি করেছেন । ন কবির জীবনযাপনের } শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের ‘ আমি দেখি ’ কবিতায় কবি প্রকৃতপক্ষে বৃক্ষবন্দনা — নিজের বেঁচে থাকার করেছেন । জঙ্গল থেকে গাছ তুলে এনে বাগানে বসানাের ইচ্ছা প্রকাশ একটি কবিতায় কবি করেছেন তিনি । কবিতার একেবারে শুরুতেই কবি বলেছেন , “ আমার গান , নতুন গাছটি / বেঁচে দরকার শুধু গাছ দেখা । ” তার শরীরের জন্য সবুজ গাছেদের সান্নিধ্য একান্ত শঙ্গে সুর মিলিয়েই কবি প্রয়ােজন বলে কবি জানিয়েছেন | নাগরিক জীবনের ব্যস্ততা , ক্লান্তি আর সবুজ যেহস্পর্শ অত্যন্ত । একঘেয়েমি থেকে মুক্তির জন্য প্রকৃতির কাছে চলে যাওয়া কবির একটি কু তার খুবই দরকার । প্রিয় অভ্যাস | অন্য একটি কবিতায় কবি লিখেছিলেন — “ গাছের ভিতরে জন্য আকুলতা অনুভব গিয়ে বসি আমি , গাছ | কথা বলে । ” প্রকৃতিপ্রেমী কবির জীবনযাপনের ট , তা কবির মনে গভীর । কৃত্রিমতা স্বাভাবিকভাবেই তার অসুখের কারণ বলে মনে হয় । এক জায়গায় হা করে কেবল সবুজ তিনি নিজেই লিখেছেন “ সারাদিন কাজ করে সন্ধ্যায় মৃত্যুর / ভিতরে * থেকে গাছ তুলে এনে সেঁধিয়ে যাওয়া শ্রেণীবদ্ধভাবে / এভাবেই কি দিন যাবে ? এভাবেই কি স্থার মধ্যে শান্তি খোজে , যাবে ? ” বহুদিন জঙ্গলে না যাওয়ার বেদনা তাই কবির মনে তীব্র আক্ষেপ 1 বাগানে গাছ দেখতে । | তৈরি করে । তাই প্রকৃতির বুকে নিজেকে মেলে ধরতে না পেরেই কবির ত্রিমতায় ক্লান্ত কৰি | মনে হয়েছে বাগানে গাছ বসানাে প্রয়ােজন | এই প্রয়ােজন তার চেতনাকে - ShareChat
116 জন দেখলো
12 মাস আগে
অন্য কোথাও শেয়ার করুন
Facebook
WhatsApp
লিংক কপি করুন
মুছে ফেলুন
Embed
আমি এই পোস্ট এর বিরুদ্ধে, কারণ...
Embed Post