আর যেখানে যাও না রে ভাই সপ্তসাগর পার,  কলকাতার ব্রিজের কাছে যেও না খবরদার!  সর্বনেশে ব্রিজ সে ভাই যেও না তার ধারে —  হঠাত্ ভেঙে পরতে পারে,মাথায় কিম্বা ঘাড়ে, কে যে সারায়, কেউ জানে না, কোন্‌ সে দপ্তরে পরলে ভেঙ্গে জোর ক’রে ভাই গল্প শোনায় প’ড়ে।  বিদ্‌ঘুটে তার গল্পগুলো না জানি কোন দেশী,  শুনলে পরে হাসির চেয়ে কান্না আসে বেশি।  না আছে তার মুণ্ডু মাথা না আছে তার মানে,  তবুও তোমায় শুনতে হবেই তাকিয়ে তাদের পানে।  কেবল যদি গল্প বলে তাও থাকা যায় সয়ে,  উন্নয়নের সুড়সুড়ি দেয় লম্বা পালক লয়ে।  কেবল বলে- "হোঃ হোঃ হোঃ, কালীঘাটের পিসি ব্রিজের গায়ে আবোল-তাবোল আঁকত দিবানিশি। হোক্ পিঠ তার খন্দে ভরা, হোক্ গার্ডার বাঁকা, রেলিং ভরে নীল ও সাদা আলপনা তার আঁকা। অষ্টপ্রহর গাইত পিসি ঢাক পিটিয়ে নিজের, উদ্ভট সব নাম দিত সে প্রত‍্যেকটি ব্রিজের!" না হাসলেই দড়াম্ করে রদ্দা মারে ঘাড়ে, হঠাৎ করে বার করে নল ঠেকায় পাঁজর-হাড়ে। ব্রিজ ভেঙেছে ব্রিজের দোষে। কিংবা বামের ত্রুটি। চটপট তা মানলে পরে তবেই পাবে ছুটি! সংগৃহীত
3.7k views
6 months ago
Share on other apps
Facebook
WhatsApp
Copy Link
Delete
Embed
I want to report this post because this post is...
Embed Post