কনডম কি ? কনডম হলো এক ধরণের জন্মবিরতিকরণ উপাদান।অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভধারণ এবং যৌন সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ করার সবচেয়ে ভালো উপায় হল কনডম ব্যবহার করা। এটি ল্যাটেক্স রাবার অথবা প্লাস্টিক ( পলিইউরিন) দিয়ে তৈরি জন্মনিয়ন্ত্রক। কনডম কোথায় পাবেন ? দোকান ফার্মেসি সুপারমার্কেট অনলাইনে কনডম কত প্রকার ? কি কি ? কনডম দুই প্রকার নারীর পুরুষের পুরুষের কনডম কীভাব ব্যবহার করবেন? কনডম ব্যবহার বেশ সহজ, তাছাড়া কনডমের প্যাকেটেই ব্যবহারবিধি লেখা থাকে। তাও এ ব্যাপারে কিছু ব্যপার জেনে রাখা ভালো। তা হলোঃ কনডম ব্যবহারের আগে মেয়াদোত্তির্ণের তারিখ দেখে নিন। মেয়াদোত্তির্ণের তারিখ শেষ হওয়া কনডম ব্যবহার করা উচিত নয়। ভ্যাজায়নার সাথে পেনিসের কোন রকম স্পর্শের আগেই কনডম পরে নেওয়া উচিত। কেননা স্পার্ম (বীর্য) আউট ছাড়াও প্রি-কাম-ফ্লুইড (Pre-Cum-Fluid) বলে তরল পদার্থ পেনিস থেকে বের হয় যা ছেলেরা টের পায় না খুব একটা, কিন্তু তাতে ঠিকই স্পার্ম থাকে। তাই পুল আউট ব্যাবস্থা, অর্থাৎ স্পার্ম আউটের আগে পেনিস বের করে ফেলা কার্যকর নয় বাস্তবে। অবশ্যই কনডম ব্যবহার করুন, প্রেগনেন্সি ও সকল ঝামেলা এড়াতে চান যদি। প্রত্যেক সঙ্গমের জন্য একটি কনডম ব্যাবহার করুন। কখনোও একটি কনডম একাধিকবার ব্যবহার করবেন না। প্যাকেট থেকে কনডম বের করার সময় সাবধান। ছিড়ে ফেললে বা ভেঙ্গে গেলে আরেকটা কনডম ব্যবহার করুন। ভেঙ্গে যাওয়া কনডম কোন দিক থেকেই সেক্সকে নিরাপদ করে না। প্রয়োজনে কনডমের ভেতর এক দুই ফোটা লুব্রিক্যান্ট দিতে পারেন। এতে কনডম পরতে যেমন সুবিধা হয় তেমনি তা ছেলেদের জন্য বেশি মজারও হয়। পেনিস পুরোপুরি দাড়ানোর পরই কনডম পরুন। সামনের দিকে আধা ইঞ্চির মত জায়গা রাখুন কনডমে স্পার্ম ধারনের জন্য। সামনের দিকে বাতাস থাকলে তা হাত দিয়ে চেপে ভেতরে নিয়ে যান এবং পেনিসের উপর কনডম যতটুকু স্ট্রেচ হয় ততটুকু করুন। কোন বাতাসের বুদবুদ থাকলে তা সমান করুন, এগুলো কনডম ভেঙ্গে ফেলতে পারে। কনডম পরার পর চাইলে লুব্রিক্যান্ট দিতে পারেন উপরে সেক্স শুরুর সময়। পেনিস নরম হওয়ার আগেই ভ্যাজাইনা থেকে পেনিসটি কনডম সহ বের করে ফেলুন। কনডম খোলার সময় একজন কনডম ধরে রাখুন আরেকজন খুলুন, এতে স্পার্ম ছড়িয়ে পরবে না। কনডম কখনো টয়লেটে বা কমোডে ফ্লাশ করবেন না। বাচ্চাদের নাগালের বাইরে কোন ট্র্যাশ বিনে ফেলুন। কনডম একবার খোলার পর পেনিস ভাল করে সাবান ও পানি দিয়ে ধুয়ে নিন, আরেকবার ভ্যাজায়নাতে ঢুকানোর আগেই। তবে যেখানে সেখানে কনডম ফেলবেন না। নারীর কনডম কীভাব ব্যবহার করবেন? o#রাখুন যেন তা ছিড়ে না যায়। বন্ধ দিকটি নিজের তর্জনী বা বুড়ো আঙ্গুলের মাঝে ধরুন । যেখানে একটি পাতলা রিং আছে আরেক হাত দিয়ে যোনী উন্মুক্ত করুন । #তারপর রিং টি যোণীতে প্রবেশ করান এবং মধ্য আঙ্গুল দিয়ে রিং এর মাঝে অংশ যোনির যতটুকু ভিতরে সম্ভব ততটুকু ভিতরে প্রবেশ করান । পাতলা রিংটি যোনীর জতটুকু বাইরের দিকে সম্ভব সেখানে রাখুন । খেয়াল রাখুন পুরুষ লিঙ্গ যেন যোনী এবং কনডমের মাঝ দিয়ে চলে যায়। #মিলেনের পর কনডমের শেষ অংশ ধরে কন্ডম বের করে আনুন । খেয়াল রাখুন কনডম যেন ছিড়ে না যায়। তাতে বীর্য দেহে প্রবেশ করতে পারে । এমন হলে ডাক্তারের পরামর্শে ইমার্জেন্সি পিল সেবন করুন। #ম্যাজিক_কনডম মূল্য: 1499 টাকা মোবা: 01848408719 Code:B-2 ( যৌন মিলনের স্থায়ীত্ব বাড়াতে ১০০% কার্যকারী) #কার্যকারিতা: $আপনার বীর্য দেরিতে পরতে সাহায্য করবে। $মিলনের সময় বাড়বে ২৫/৩০ মিনিট। $ এই কনডম ১০০০ ব্যাবহার করা যায়। এই কনডম ৩ মিলিমিটার পরিমান মোটা ফলে আপনার সময় অনেক বাড়াবে $এই কনডম আকার ভেদে ৫ ইঞ্চি থেকে ৭ ইঞ্চি হয় $ এই কনডম এ উপরের সাইডে অনেক গুলা অতি নরম রেখা আছে যা আপনার সঙ্গিনিকে ৫ মিনিটের ভিতর অতিমাত্রায় উত্তেজিত করতে সাহায্য করবে এবং খুব তাড়াতাড়ি মেয়েদের অর্গাজম হবে। $ এই কনডম এ সাধারন কনডম এর মত এতে তেল লাগাতে হয় নাSir $ এই কনডম যে কোনও সাইজের লিঙ্গে সহজে ব্যাবহার করা $এই কন্ডম ইলাস্টিক তাই ফেটে যাওয়া বা ছিড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই। যাদের গোপনাঙ্গ ছোট। #ডেলিভারী_পদ্ধতি $ ঢাকা সিটির বাইরে 200 টাকা অগ্রিম প্রযোজ্য। $ আপনার কাছে ২৪ থেকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আপনার পন্যটি পৌঁছে যাবে। $আমরা সারা বাংলাদেশে কুরিয়ার এর মাধ্যমে ডেলিভারি করে থাকি। বিস্তারিত জানতে কল করুন 01848408719 আপনাদের সুখী জীবনই সর্বদা আমাদের কাম্য
মারিও_ডে - Code - B2 加长龙根套 - ShareChat
387 views
4 months ago
Share on other apps
Facebook
WhatsApp
Copy Link
Delete
Embed
I want to report this post because this post is...
Embed Post