আপনার ভাষা বদলান
Tap the Share button in Safari's menu bar
Tap the Add to Home Screen icon to install app
ShareChat
#

🌠স্মৃতি ২০১৮

অনুগল্প : বড়দিন কলমে : তুহিনা মিত্র ভোরের ফার্স্ট ট্রেন মিস হয়ে গেছে। পরেরটাই ভরসা। শীতের ভোর। চারটে চল্লিশ। আর দশ মিনিট পর ট্রেন। হাওড়ায় ঢোকাবে সাড়ে পাঁচটা। ছটা কুড়িতে আমার কর্মস্থলের দূরপাল্লার ট্রেন। প্লাটফর্মে দাঁড়িয়ে কাঁপছি আর আর তিরিশ বছরের পুরোনো চা দোকানি হারু দা কে তাড়া লাগাচ্ছি এক কাপ চায়ের জন্য। হঠাৎ প্যান্টের পিছন দিকে টান....বাবু একটা কেক কিনে দাও না....ছেঁড়া হাফপ্যান্ট, ছেঁড়া সোয়েটার, খালি পা... বছর আটকের শৈশব। মায়া লাগলো, হারু দা কে বললাম," চা হয়ে গেলে একে পেট ভরে ডিম টোস্ট করে দিও তো। এই নাও টাকা।" ছেলেটার চোখে খুশির ঝলক। তারপর আবার বলে, "বাবু, একটা কেক দাও না, বাপুজি কেক"। অবাক হই। এর নাম শিশু। পেট ভরা খাবারের ব্যবস্থা করে দিলাম, তবু একটা পাঁচ টাকার কেকের লোভ ছাড়তে পারে না। দিলাম কিনে। বললাম, "থাকিস কোথায়?".....ছেঁড়া প্যান্টের পকেট থেকে তস্য ছেঁড়া একপাটি মোজার ভেতর কেকটা পুরতে পুরতে বলল সে..."ওই তো, রেললাইনের ওপাশের ঝুপড়ি তে"। ...."ওকি? খাবি না কেক টা?"..."না বাবু, মোজার ভেতরে করে এটা আমার ছোট বোন টার মাথার কাছে রেখে দেব, ও ঘুম থেকে উঠে এটা পেয়ে খুব খুশি হবে। আজ না বড়দিন...! তাইতো এত ভোরে ভিক্ষে চাইতে বেরোলাম। আমি যাই বাবু। ও এক্ষুনি উঠে পড়বে..."। খালি পায়ে লাফাতে লাফাতে চলে গেল বছর আটেকের সান্টা ক্লস... পৃথিবীতে তার সবচেয়ে প্রিয় শিশু টিকে মোজায় ভরে বড়দিনের উপহার দিতে। ক্ষনিকের জন্য ঝাপসা হল আমার চশমার কাচ। সেকি শীতের জমাট কুয়াশায় নাকি আমার ভেতরের অকাল শ্রাবনে, কে জানে। লেখিকার অনুমতি না নিয়েই post করলাম........
264 জন দেখলো
4 মাস আগে
অন্য কোথাও শেয়ার করুন
Facebook
WhatsApp
লিংক কপি করুন
মুছে ফেলুন
Embed
আমি এই পোস্ট এর বিরুদ্ধে, কারণ...
Embed Post