খবর 🗞
দীর্ঘ চার বছর পর বাংলার মাটিতে পা রাখলেন মিঠুন চক্রবর্তী! খুললেন নতুন হোটেল! #দার্জিলিং: চার বছর বাংলার সঙ্গে ছিল না কোনও সম্পর্ক। কোথাও দেখা যাচ্ছিল না তাঁকে। তাঁর ওপর আবার সারা বাজারে একটাই কথা ঘুরছে তিনি নাকি খুব অসুস্থ। এই সব কিছুর অবসান ঘটিয়ে আবশেষে দেখা দিলেন মিঠুন চক্রবর্তী। ১৫ এপ্রিল -পয়লা বৈশাখের দিনে কার্শিয়াং সেন্ট অগাস্টিন স্কুলের সামনে নিজের একটি হোটেল উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে প্রকাশ্যে দেখা যায় মিঠুনকে। গোপন ছিল মিঠুনের পাহাড়ে আসার খবর। হোটেলের চারপাশে ছিল কড়া নিরাপত্তা। কিন্তু তাঁর আসার খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে পাহাড়ে। এমনকী, সমতলেও চাঞ্চল্য ছড়িয়ে যায় মিঠুনকে কেন্দ্র করে। ওই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত ছিলেন জিটিএ প্রশাসনিক বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান তথা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সভাপতি অনীত থাপা। মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে অনীত থাপা প্রেস বিবৃতিতে অনীত জানান, 'মিঠুন চক্রবর্তীর মতো চলচ্চিত্র জগতের প্রথম সারির অভিনেতা দার্জিলিঙে হোটেল শিল্পে বিনিয়োগ করছেন, এটা ভাল খবর।' তিনি মিঠুনকে পাহাড়ের বেকার যুবকদের হোটেলে কর্মসংস্থানের জন্য আর্জি জানিয়েছেন। তিনি ইতিবাচক সাড়া দিয়েছেন। অনেক দিন আগে থেকেই শিলিগুড়ির শিবমন্দিরে মিঠুনের হোটেল '‌মোনার্ক' চলছে। এবার পাহাড়েও তৈরি হল মিঠুনের হোটেল। এই রাজ্য থেকে রাজ্যসভার সদস্য হয়েছিলেন ২০১৪ সালে। কিন্তু তারপর থেকেই নানা কারণে নিজেকে গুটিয়ে রাখেন। ২০১৬ তে রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগও করেন। বাংলার সঙ্গে কার্যত কোনও সম্পর্ক ছিল না। প্রায় ধরাছোঁয়ার বাইরেই ছিলেন। সেই মিঠুনের আত্মপ্রকাশ রীতিমতো চাঞ্চল্য তৈরি করেছে। বাংলার প্রতি আলাদা টান আছে মিঠুনের। বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড খেলাধুলোর সঙ্গে জড়িত ছিলেন তিনি। সারা দেশের পাশাপাশি রাজ্য জুড়েও মিঠুনের অনুরাগীর সংখ্যা এখনও তুঙ্গে। তবে এতদিন বাদে প্রকাশ্যে মিঠুনের কর্মকাণ্ডের খবর ছড়ানোয় অনেকেই আশা করছেন এখন থেকে ফের সামনে আসবেন সুপারস্টার। তবে সবটাই জানেই মিঠুন দাদা। দেখা যাক ভবিষ্যতে তাঁকে আবার বাংলায় আসতে দেখা যায় কিনা!
#

খবর 🗞

খবর 🗞 - ShareChat
108 জন দেখলো
10 মাস আগে
আর কোনও পোস্ট নেই
অন্য কোথাও শেয়ার করুন
Facebook
WhatsApp
লিংক কপি করুন
মুছে ফেলুন
Embed
আমি এই পোস্ট এর বিরুদ্ধে, কারণ...
Embed Post